২৮শে নভেম্বর, ২০২২ ইং | ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

EN

সরাইলে আ’লীগের কমিটি বাতিলের দাবীতে মহাসড়কে মানববন্ধন

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ১০:১২ অপরাহ্ণ , ১৩ মার্চ ২০১৭, সোমবার , পোষ্ট করা হয়েছে 6 years আগে

সরাইল উপজেলার নোয়াগাঁও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের আহবায়ক কমিটি বাতিলের দাবীতে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের বাড়িউড়া নামকস্থানে মানববন্ধন ও পথ সভা করেছে ওই ইউনিয়নের আ’লীগের কিছু নেতা কর্মী।  সোমবার বিকেলে অ্যাডভোকেট মোঃ সোহেলুর রহমান চৌধুরীর নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে জেলা থেকে অনুমোদিত কমিটিকে প্রত্যাখ্যান করে তারা। একই সাথে শুধু জেলার সভাপতি নয় উপজেলা আ’লীগের যুগ্ম আহবায়ক-১, উম্মে ফাতেমা নাজমা বেগম শিউলী আজাদসহ উপজেলা কমিটির সকলের সাথে পরামর্শ করে সৎ যোগ্য ও ত্যাগী নেতাদের দ্বারা কমিটি গঠনের দাবী জানায় মানববন্ধনকারীরা। তবে সরাইল উপজেলা আ’লীগের আহবায়ক ও অপর যুগ্ম আহবায়ক বলছেন ভিন্ন কথা। সরজমিনে দলীয় ও স্থানীয় লোকজন সূত্রে জানা যায়, ২০১৩ সালের ডিসেম্বর মাসে মোঃ হামিদুল হককে সভাপতি ও মোঃ শফিক মুন্সিকে সাধারন সম্পাদক করে নোয়াগাঁও ইউনিয়ন আ’লীগের কমিটি অনুমোদন দেয় উপজেলা আ’লীগ। গ্রুপিং দ্বন্ধের কারনে ওই কমিটিটি অকার্যকর হয়ে পড়েছিল।

গত ৯ মার্চ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি হামিদুল হককে আহবায়ক করেই ৬১ সদস্য বিশিষ্ঠ একটি আহবায়ক অনুমোদন দেন। এ কমিটির ঘোষণা আসার পরই সেখানকার আ’লীগের কিছু নেতা কর্মীর মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করতে থাকে। তারা মহাসড়কে আ’লীগ নেতা তাজুল ইসলাম ও সোহেলুর রহমানের নেতৃত্বে দ্রুত ওই কমিটি বাতিল ও নতুন করে কমিটি করার দাবীতে মানববন্ধন করেন। ঘন্টাব্যাপি মানববন্ধন শেষে এক পথ সভায় বক্তব্য রাখেন- আ’লীগ নেতা মোঃ তাজুল ইসলাস, সোহেলুর রহমান চৌধুরী, ইউপি সদস্য আলী শাহরিয়ার শিপন, শ্রমিক নেতা মোঃ আমীর হোসেন আমু, যুবলীগ নেতা মনির হোসেন ও মামুন। তারা নতুন আহবায়ক কমিটিকে অনিয়মতান্ত্রিক ও পকেট কমিটি উল্লেখ করে বলেন, হামিদুল হক আদম ব্যবসায়ি। এলাকার জনগনের সাথে তার কোন সম্পৃক্ততা নেই। সে জনবিচ্ছিন্ন। সে এলাকার মানুষের দেড় কোটি টাকা আত্মসাৎ করে পালিয়েছে। তার বিরুদ্ধে ৪-৫টি মামলা রয়েছে। এ ছাড়া এ কমিটিতে বিএনপি ও জাতীয় পার্টির ৫-৬ জন লোককে পদ দেয়া হয়েছে। জেলা কমিটি কখনো ইউনিয়ন কমিটির অনুমোদন দিতে পারে না। ইউনিয়ন কমিটির অনুমোদন দিবে কেবলমাত্র উপজেলা কমিটি। আমরা এ অবৈধ কমিটি মানি না। মানব না।

উপজেলা যুবলীগ নেতা শেখ আল-মামুন বলেন, অর্থের বিনিময়ে জেলা আ’লীগ হামিদুল হকের এ অবৈধ কমিটিকে অনুমোদন দিয়েছেন। এ কমিটি বাতিল না করলে হরতালের মত কর্মসূচিও আসতে পারে। মানববন্ধন শেষে তারা মহাসড়ক অবরোধ করার চেষ্টা করলে পুলিশ বাঁধা দেয়। যুগ্ম আহবায়ক-১, উম্মে ফাতেমা নাজমা বেগম বলেন, নোয়াগাঁও ইউনিয়ন আ’লীগের কমিটি জেলা আ’লীগ অনুমোদন দিয়েছেন কিনা এ বিষয়ে আমি এখনো কিছুই জানি না। আর উপজেলা আ’লীগের আহবায়ক অ্যাডভোকেট নাজমুল হোসেন ও যুগ্ম আহবায়ক অ্যাডভোকেট আবদুর রাশেদ বলেন, গত ৬-৭ মাস আগে উপজেলা আ’লীগের বর্ধিত সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক জেলা আ’লীগকে নোয়াগাঁও ইউনিয়ন কমিটি করার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। এ কমিটি বৈধ। টাকার বিনিময়ে কমিটি দিয়েছে এমন কথা সত্যই দুঃখজনক। এ ধরনের নেক্কারজনক উদ্ভট কথা যারা বলে তারা আওয়ামীলীগের কেউ নয়।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

March 2017
M T W T F S S
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  
আরও পড়ুন