২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

EN

শখ করে কবুতর পালনে স্বাবলম্বী হওয়ার গল্প মহি উদ্দিনের

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ১০:৪৩ অপরাহ্ণ , ২ মার্চ ২০২৩, বৃহস্পতিবার , পোষ্ট করা হয়েছে 1 year আগে

মো. তাসলিম উদ্দিন সরাইল( ব্রাহ্মণবাড়িয়া)কবুতরপ্রেমী সরাইল উপজেলার নাথ পাড়া মহি উদ্দিন আহমেদ। অনেকেই জানেন কবুতরকে বলা হয় শান্তির প্রতীক। আগের যুগে রাজা-বাদশারা কবুতরের পায়ে বার্তা বেঁধে দিতেন। বলা যায়, তখন বার্তাবাহক হিসেবে কবুতর ব্যবহার করা হতো। অন্যদিকে, রোগীর পথ্য হিসেবেও কবুতরের মাংসের জুড়ি নেই। শখের বসে অনেক তরুণ- তরুণীরা কবুতর পালন করেন। কবুতর বিক্রি করে নিজেদের পকেট খরচের ব্যবস্থা করেন। সৌখিন কবুতর প্রেমী অনেকের সফলতাই বলার মতো। সে রকমই একজন শখ করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরাইল উপজেলার নাথ পাড়ার মহি উদ্দিন। গল্পের মতো বলেন তার কথা। তাদের পেশায় মাছ ব্যবসা। আমরা জেলে বলে থাকি। মহি উদ্দিন মাছের ব্যবসার পাশাপাশি অল্প সময়ে কবুতর পালনে সফলতা পেয়েছেন। বর্তমানে কবুতর ফার্মের মালিক তিনি।শুরুটা শখের দুই জোড়া কবুতর দিয়ে হলেও এখন তার কবুতরের সংখ্যা ৪০ থেকে ৫০ জোড়া ছাড়িয়ে গেছে। প্রায় একযোগ আগে শুরু করা শখে কবুতর পালন এখন আর শখে সীমাবদ্ধ নেই, পরিণত হয়েছে পেশায়। খরচ বাদে বর্তমানে তার মাসিক আয় ৩৫ থেকে ৪০ হাজার টাকা।শুরুর গল্পটা একটু ভিন্ন। তাদের ব্যবসা ছিল মাছের ব্যবসা।ভাই বেরাদার সবাই মাছের ব্যবসা করে। কিন্তু সে চিন্তা দ্বারা ছিল কবুতর নিয়ে। মহিউদ্দিন বলেন, শখের কবুতর পালন করতে গিয়ে।আজ আমি সংসার জীবনের স্বাবলম্বী। আমি দুটি কবুতর দিয়ে শুরু করি। আমার অনেক কবুতর আছে। দেশ-বিদেশের অনেক মানুষের সাথে পরিচয় হয়েছে।সারা বাংলাদেশে আমাদের একটি ক্লাব রয়েছে।এর মাধ্যমে দেশ বিদেশের আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় আমি কয়েকবারই প্রথম হয়েছি।আজ আপনারা যা কিছু দেখছেন।সব আমি কবুতর ফার্মেরই এই উপার্জন করেছি। এই যে জায়গা দেখছেন এবং বাড়ি বিল্ডিং। সবই কবুতরের টাকা দিয়ে করেছি। তবে এখন দুই তিন মাস ধরে ব্যবসা এত ভালো না।তবু খেয়ে দেয়ে ভালো আছি। দেশের বিভিন্ন স্থান অনলাইনেও কবুতর বিক্রি করেন তিনি। আমেরিকান সো কিং,পালন করার কারণ হিসেবে তিনি জানান, ‘আমেরিকান সো কিং,কবুতরের চাহিদা বেশি, এরা খুব ভালো মানের ডিম দেয় ও বাচ্চা ফোটায়। ২ মাসে এদের বাচ্চা বিক্রি করার উপযোগী হয়। অবশ্য অনেকে এক মাসের বাচ্চাও বিক্রি করে। এরা আকাশে উড়তে পারে না।তার কাছে ইন্ডিয়ান ফান্টেল, লাহোর কালো, হলুদ। তুরিবাজ লাল,কালো, এলমন্ড, ইন্ডিয়ান নোটন, দেশি লোটন, বাশিরাজ কোকা, মাক্সি রেচার হুমা, সবজে গিরিবাজ, লাল,সাদা, হলুদ বোম্বাই, আমেরিকান সো কিং, ইত্যাদি প্রজাতির কবুতর রয়েছে। তবে সে জানিয়েছে কবুতর পালনে অনেক সহজ।কবুতরের রোগ বালাই খুব কম হয়।কবুতরের লাভ বেশি।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

March 2023
M T W T F S S
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  
আরও পড়ুন