২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ ইং | ১০ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

EN

বাছির ভাই দিনে কঠোর পরিশ্রম করে রাতে আল্লাহর ঘর পরিষ্কার করে

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ২:০২ পূর্বাহ্ণ , ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, বুধবার , পোষ্ট করা হয়েছে 1 week আগে

 

মো. তাসলিম উদ্দিন সরাইল( ব্রাহ্মণবাড়িয়া)যে ব্যক্তি যে জিনিসের যত বেশি সম্মান করবে,  আল্লাহতায়ালা সে ব্যক্তিকে সে বিষয়ে তত বেশি বরকত দান করবেন। কেউ যদি কিতাবের বেশি সম্মান করে, তাহলে সে ইলম পাবে, এটাই স্বাভাবিক। তেমনই যে মসজিদের সম্মান করবে আল্লাহতায়ালা তাকে মসজিদের বরকত বেশি দান করবেন। মসজিদে বেশি বেশি নামাজ পড়ার সুযোগ আল্লাহতায়ালা তাকেই দান করবেন। আজ রাতে সরাইল উপজেলার উচালিয়া পাড়ার চৌরাস্তায় মসজিদে এশার নামাজ পড়তে ঢুকি। এশার জামাত শেষ হয়ে গেছে মুসুল্লিরা প্রায় অনেকেই বেরিয়ে গেছে। মসজিদের ভিতরে কেউ নেই। মসজিদের বারান্দায় ফ্যানের সুইচ অন করে আমি নামাজ পড়তে শুরু করলাম। আমার নামাজ পড়া শেষ। হঠাৎ নজরে দেখি আমার চতুর্দিকে একটি লাঠির ব্রাশ হাতে নিয়ে আমাকে মধ্যে রেখে চতুর্দিকে পরিষ্কার করছেন। লোকটির দিকে তাকিয়ে রইলাম অনেকক্ষন। আর চিন্তা করলাম, লোকটাকে আমি চিনি নাম তার বাছির’ আমরা বাছির ভাই বলে ডাকি। আমি যতটুকু জানি এবং ততটুকু উনার সম্বন্ধে আমার জানা। উনি সারা দিন একটি ভ্যান গাড়ি চালাই। বিভিন্ন সময় বিভিন্ন মানুষের প্রয়োজনীয় মালা- মাল দোকান থেকে নিয়ে যায়। কাজকর্মের সময় উনার পাঞ্জাবি টুপি পরানো অবস্থায় থাকে। বাছিরভাই মানুষ হিসেবে সহজ সরল সবার সঙ্গে ভাল ব্যবহার করা উনার চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য। এমন কথা মনে মনে আমি ভাবছিলাম।তখনই বাছির ভাই বলে, কিউ ভাই কি দেখো। আমি বললাম বাছির ভাই কিছু না। তখন বাছির ভাই মসজিদের উত্তর থেকে দক্ষিণ দিকে আবার পরিস্কার কাজে ব্যস্ত হয়ে গেলেন। আমার মনে প্রশ্ন জাগলো। এ লোকটি সারাদিন কঠোর পরিশ্রম করার পরেও? রাতে এশার নামাজ পড়ে যখন সকল মুসল্লীরা চলে যায়। বাছির ভাই মসজিদের পরিস্কার কাজে ব্যস্ত থাকে।। আল্লাহ উনার পরিশ্রমকে কবুল করেন।।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

September 2021
M T W T F S S
« Aug    
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
27282930  
আরও পড়ুন