২৫শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

EN

ডঃ এর করোনা তারপরেও বেসরকারি ক্লিনিকে রোগী দেখছেন!!

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ৫:২৭ অপরাহ্ণ , ২৯ জুন ২০২১, মঙ্গলবার , পোষ্ট করা হয়েছে 3 years আগে

নিজে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েও ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের একটি বেসরকারি ক্লিনিকে রোগী দেখছেন শ্যামল রঞ্জন দেবনাথ নামে এক চিকিৎসক। অথচ তার কর্মস্থল পাশের জেলা হবিগঞ্জ সদর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় আইসোলেশনে থাকতে ছুটি দিয়েছেন তাকে। কিন্তু তিনি আইসোলেশনে না থেকে রোববার দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত অনেক রোগী দেখেছেন।

প্রথমে চিকিৎসা নিতে আসা রোগী ও তাদের স্বজনরা বিষয়টি না জানলেও পরে করোনা আক্রান্ত হয়ে রোগী দেখার বিষয়টি জানাজানি হলে সবাই আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন।

অনুসন্ধানে  জানা যায়, হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালের জুনিয়র কনসালটেন্ট অর্থোপেডিক চিকিৎসক শ্যামল রঞ্জন দেবনাথ নিয়মিত রোগী দেখেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শহরের কুমারশীল মোড়ের একটি বেসরকারি ক্লিনিকে।

শারীরিক ভাবে অসুস্থ হওয়ায় গত ১৪ জুন চিকিৎসক শ্যামল রঞ্জন দেবনাথের স্ত্রী ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে করোনা পরীক্ষা করতে নমুনা প্রদান করেন। করোনার এন্টিজেন পরীক্ষায় তার স্ত্রীর পজিটিভ আসে। এরপর চিকিৎসক শ্যামল রঞ্জন দেবনাথ করোনার এন্টিজেন পরীক্ষা করলে তার নেগেটিভ আসে। কিন্তু ঢাকায় পাঠানো নমুনার পিসিআর ল্যাব রিপোর্টে চিকিৎসক শ্যামল রঞ্জন দেবনাথ পজিটিভ হন। এর কিছু দিন পর তিনি আবার এন্টিজেন টেস্ট করালে তার নেগেটিভ আসে। একই নমুনা ঢাকায় পাঠালে গত শনিবার আসা রিপোর্টে চিকিৎসক শ্যামল রঞ্জন দেবনাথের করোনাভাইরাস পজিটিভ আসে।

রোববার বিকেলে তার ব্যক্তিগত চেম্বারে গিয়ে দেখা যায়, অনেক লোকের ঝটলা। সিরিয়াল অনুযায়ী প্রথমে তার ভিজিটের টাকা পরিশোধ করে রোগীকে রুমের ভেতরে প্রবেশ করানো হচ্ছে। একে একে কয়েক ঘণ্টার মধ্যে ৩০ জন রোগীকে চিকিৎসা সেবা দিয়েছেন। ফলে করোনা আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিতে পড়েছেন তার কাছে সেবা নিতে আসা রোগীরা।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

আরও পড়ুন