২৮শে নভেম্বর, ২০২২ ইং | ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

EN

মানুষের উপকারার্থে সমাজ-সেবা কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ, তাসলিম উদ্দিন

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ১২:১০ পূর্বাহ্ণ , ২১ মে ২০২১, শুক্রবার , পোষ্ট করা হয়েছে 2 years আগে

মানবসেবা ও সৃষ্টিকুলের প্রতি সহানুভূতিশীল হয়। ‘আশরাফুল মাখলুকাত’ বা সৃষ্টির সেরা জীব হিসেবে বাক্শক্তিসম্পন্ন মানুষের জ্ঞান-বুদ্ধি, বিবেক-বিবেচনা, আত্মমর্যাদাবোধ ও সজাগ-সচেতনতা রয়েছে মেধা-মননশীলতা ও উন্নত গবেষণা রয়েছে। জগতের সবকিছু মানুষের উপকারার্থে বিদ্যমান। মহাকাশ ও পৃথিবীর সর্বত্র আল্লাহর অনুগ্রহ পরিবেষ্টিত সবই মানুষের কল্যাণের নিমিত্তে। পবিত্র কোরআনে আল্লাহর অশেষ অনুগ্রহের কথা বলা হয়েছে,‘পরম করুণাময় আল্লাহ, তিনিই শিক্ষা দিয়েছেন কোরআন। তিনিই সৃষ্টি করেছেন মানুষ, তিনিই তাকে ভাব প্রকাশ করতে (ভাষা) শিখিয়েছেন।তিনি আকাশকে সমুন্নত করেছেন এবং ভারসাম্য স্থাপন করেছেন, যাতে তোমরা ভারসাম্য বা সীমা লঙ্ঘন না করো।’ (সূরা আর রাহমান, আয়াত: ১-৮)

আল্লাহ তাআলা মানুষকে এ অভিপ্রায়ে সৃষ্টি করেছেন, যেন তারা পরস্পরের কল্যাণকামী বন্ধু এবং পরোপকারী হয়, এমন একজন মানুষের উপকারার্থে সহযোগিতা এগিয়ে আসেন সরাইলে কর্মরত উপজেলা সমাজ- সেবা কর্মকর্তা মো. আবুল কালাম আজাদ, বতর্মান কর্মরত সরাইল উপজেলার এক কর্মকর্তার বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা ‘উনার জেলা কুমিল্লা সরকারি ভাতা নিয়ে কয়েক মাস ধরে তারা অনেক জটিলতা মধ্যে পরে ছিল এ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারটি। গত সোমবার ঐ কর্মকর্তা সরাইল উপজেলা সমাজ- সেবা কর্মকর্তার সঙ্গে দেখে করে বিস্তারিত সব কিছু বুঝিয়ে বলেন, তিনি সঙ্গে সঙ্গে সব কাগজপত্র দেখেন কুমিল্লায় খবরা খবর নেন। পরে সরাইল উপজেলা সমাজ-সেবা কর্মকর্তা ঢাকা কথা বলে বিভিন্ন জায়গায় যোগাযোগ করে আজ বৃহস্পতিবার ঐ কর্মকর্তার বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধার সকল সমস্যা সমাধান করে দেন। সত্যিই আজ সরাইল উপজেলার সুযোগ্য হাসিমাখা যার মুখ’ নিঃ স্বার্থে মানুষের উপকারার্থে মানুষের কাজ করে’ নিজে দেখলাম যাকে তিনি সরাইল উপজেলা সমাজ-সেবা কর্মকর্তা মো.আবুল কালাম আজাদ ধন্যবাদ আপনাকে।।

জগতে মানুষ মানুষের জন্য। মানুষ যখন পারস্পরিক সমঝোতা, ঐক্য ও সম্প্রীতির বাঁধনে আবদ্ধ থাকে, তখন দুনিয়াটা শান্তির পরশে আলোকিত ও উজ্জ্বলতর হতে থাকে। অশান্তি, বিশৃঙ্খলা ও সীমা লঙ্ঘনকে কেউ পছন্দ করে না। এ মানুষই যখন জ্ঞান-বুদ্ধি,বিবেক- বিবেচনার হিত হয়ে পারস্পরিক দ্বন্দ্ব-সংঘাত, রক্তপাত, হানাহানি ও আত্মঘাতী অপকর্মে নিয়োজিত হয়ে বাড়াবাড়ি বা সীমা লঙ্ঘন করে এবং মানুষের ক্ষতিকারক দেশের মূল্যবান সম্পদ ধ্বংস করে, লোভ-লালসার বশবর্তী হয়ে অবৈধভাবে অর্থ উপার্জনে লিপ্ত হয়, তখন পৃথিবীটা শান্তিতে বসবাস করার অযোগ্য ও বিষময় হয়ে পড়ে। এ জন্য রাসুলুল্লাহ (সা.) মানুষকে সাবধান করে বলেছেন, ‘তোমাদের মধ্যে সেই উত্তম, যে মানুষের উপকার করে।’

মানুষের মধ্যে যারা কাজেকর্মে সৎ হবে, তাদের জন্য রয়েছে অঢেল পুরস্কার এবং যারা কাজেকর্মে অসৎ হবে, তাদের জন্য থাকছে তিরস্কার। সৎকর্মের পরিচয় ব্যক্তি, পরিবার, সমাজ ও সংসারজীবনের সব কাজেকর্মে সততা ও ন্যায়নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করে যাওয়া। এমন প্রত্যাশিত আমাদের।।

মোঃ তাসলিম উদ্দিন,লেখক, সাংবাদিক।।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

May 2021
M T W T F S S
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31  
আরও পড়ুন