২রা ডিসেম্বর, ২০২২ ইং | ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

EN

পেট্রল ঢেলে স্ত্রীর শরীরে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ১২:১৭ পূর্বাহ্ণ , ১৯ মে ২০২১, বুধবার , পোষ্ট করা হয়েছে 2 years আগে

মোঃনিয়ামুল আকন্ঞ্জি, স্টাফ রিপোর্টার :ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় পেট্রল ঢেলে স্ত্রীর শরীরে আগুন ধরিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে কাজল ভূঁইয়া নামের এক মাদক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে।

অভিযুক্ত কাজল ভূঁইয়া আখাউড়া উপজেলার উত্তর ইউনিয়নের আনোয়ারপুরের বাসিন্দা ও বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কাশেম ভূঁইয়ার ভাতিজা। তার বিরুদ্ধে অন্তত ১০টি মামলা বিচারাধীন বলে আখাউড়া থানা সূত্রে জানা গেছে।

মঙ্গলবার (১৮ মে) সকালে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ডলি (৪০) নামের ওই নারী মারা যান।

নিহত ডলির ভাই বিল্লাল হোসেন হৃদয় বলেন, ‘আমাদের বাড়ি বরিশালে। কিন্তু উপজেলা সদরের মসজিদপাড়ায় বসবাস করি। সীমান্তবর্তী এলাকা আনোয়ারপুরের কাজল ভূঁইয়ার সঙ্গে আমার বোনের বিয়ে হয়। তাদের সংসারে দুই ছেলে ও দুই মেয়ে রয়েছে। এরমধ্যে এক মেয়েকে বিয়ে দেয়া হয়েছে। সাংসারিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে তাদের দুজনের মধ্যে মাঝে মাঝে মনোমালিন্য হতো।

তিনি আরও বলেন, ঈদের আগের দিন রাতেও সাংসারিক বিষয় নিয়ে আমার বোনের সঙ্গে ভগ্নীপতি কাজলের বাকবিতণ্ডা হয়। এরই জের ধরে ঈদের দিন সকালে স্বামী-স্ত্রী পুনরায় বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়ে। এ সময় কাজল আমার বোনকে মারধর করে। তার ভাতিজা রামিমকে মোটরসাইকেল থেকে পেট্রল বোতল দিয়ে আনতে বলে। রামিম বোতলে পেট্রল এনে দিলে কাজল আমার বোনের শরীরে ঢেলে আগুন জ্বালিয়ে দেয়। আগুনে পুড়ে আমার বোনের অবস্থা বেগতিক হলে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকায় নেয়া হয়। মঙ্গলবার সকালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন আমার বোন।’

বিল্লাল হোসেন বলেন, ‘এ খবর পেয়ে আমার স্ত্রী তাদের বাড়িতে গেলে তাকেও আটকে রাখা হয়। সে এখনো সেখানে আটক আছে।’

আখাউড়া উত্তর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান স্বপন বলেন, ‘মারা যাওয়া নারীর ভাই আমাকে ফোনে বিষয়টি জানিয়েছে। ঘটনাটি অত্যন্ত দুঃখজনক।’

আখাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান বলেন, ‘আমরা একজন নারী অগ্নিদগ্ধ হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন বলে জানতে পেরেছি। মরদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে রেখে ময়নাতদন্ত করা হচ্ছে। সেখানে তার স্বজনেরা রয়েছে। এখনো লিখিত কোনো অভিযোগ পাইনি।’

অভিযুক্ত কাজল ভূঁইয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে আখাউড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মাসুদ আলম চৌধুরী বলেন, ‘কাজল ভূঁইয়া একজন চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী ও তার বিরুদ্ধে অনেক মামলা রয়েছে। আখাউড়া থানার অন্তত সাতটি মামলা আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। আমাদের হাতে তদন্তাধীন কোনো মামলা নেই। আমরা সব মামলা আদালতে পাঠিয়ে দিয়েছি। অন্যান্য থানায় তার বিরুদ্ধে আরও মামলা থাকতে পারে।’

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

May 2021
M T W T F S S
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31  
আরও পড়ুন