১লা অক্টোবর, ২০২২ ইং | ১৭ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

EN

৪ বছরের শিশু দিহানকে নির্মমভাবে খুন করেন- তার আপন চাচী

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ১০:৫৭ অপরাহ্ণ , ২৭ এপ্রিল ২০২০, সোমবার , পোষ্ট করা হয়েছে 2 years আগে

সুমন শৌভঃ ফটিকছড়ির পাইন্দংয়ে ৪ বছর বয়সী শিশু দিহানকে নির্মমভাবে খুন করেন তার অাপন চাচী রেশমি অাক্তার (২৫)। ঘটনার পর সন্দেহজনক ভাবে চাচিকে আটক করা হলে রাতেই পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে হত্যার কথা স্বীকার করেন তিনি। শুধুমাত্র পারিবারিক কলহের জের ধরে তাকে নিজ হাতে খুন করেন বলেও পুলিশের কাছে প্রাথমিকভাবে স্বীকার করেন রেশমি অাক্তার।

পুলিশকে দেয়া স্বীকারোক্তিতে রেশমি অাক্তার বলেন, তিনি নিজ হাতে ছুরি দিয়ে মাসুম বাচ্চাটির পেঠ, তলপেঠ এবং গালসহ শরীরের বিভিন্ন অংশে ১৬ টি আঘাত করে। মৃত্যু নিশ্চিত হওয়ার পর সব রক্ত তিনি নিজ হাতে পানি দিয়ে পরিষ্কার করে বাচ্চাটিকে লাকড়ীর ঘরে রেখে দিয়ে ওই স্থান থেকে দ্রুত সটকে পরে।

এ ব্যাপারে ফটিকছড়ি থানা অফিসার ইনচার্জ বাবুল আকতার বলেন, ‘এ ঘটনা খুবই অমানবিক। ঘটনায় নিহত শিশুর মা জনি আক্তার বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করলে জড়িত চাচি রেশমা আক্তারকে (২৫) গ্রেফতার করা হয়। চাচীর স্বীকারোক্তিতে হত্যাকান্ডে ব্যবহ্নত ছুরি টি উদ্ধার করা হয়েছে। একটি সবজি কাটার ছুরি দিয়ে খুন করা হয় দিহানকে।

উল্লেখ্য, গতকাল ২৬ এপ্রিল দুপুর ১ টার দিকে উপজেলার পাইন্দং ইউনিয়নের দক্ষিণ পাইন্দং কালু বাপের একটি লাকড়ির ঘর থেকে নাড়িভুঁড়ি বের হওয়া অবস্থায় দিহানের লাশ উদ্ধার করে ফটিকছড়ি থানা পুলিশ। নিহত দিহান পাইন্দং কালু বাপের বাড়ীর দিদারুল আলমের ছেলে।
(সূত্র দৈনিক ফটিকছড়ির খবর)
সাংবাদিক সাইফুর রহমান সোহান

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

আরও পড়ুন