২৪শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

EN

১৬ দিন ধরে নীরবেই রোগী ও স্বজনদের খাবার বিতরণ করছে এক ব্যক্তি

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ৭:৫৫ অপরাহ্ণ , ১১ এপ্রিল ২০২০, শনিবার , পোষ্ট করা হয়েছে 4 years আগে

করোনা সংকটময় মহূর্তে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে আসা রোগী ও রোগীর স্বজনদের দুর্ভোগ ও কষ্ট কমাতে গত ১৬ দিন ধরে খাবার দিচ্ছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শহরের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ব্যক্তি।

শুধু হাসপাতালেই নয় বিভিন্ন স্থানে তিনি অসহায়দের নীরবেই সহযোগিতা করে যাচ্ছে।
শনিবার সদর হাসপাতালে গিয়ে দেখা যায়, ওই ব্যক্তি নিজে প্রকাশ্যে না এসে তার কয়েকজন প্রতিনিধির মাধ্যমে হাসপাতালে বিভিন্ন ওয়ার্ডে থাকা রোগী ও রোগীর স্বজনদের এক বেলা খাবার তাদের কাছে পৌঁছে দিচ্ছেন। প্রতি প্যাকেটের মধ্যে পোলাও, ডিম, মোরগের রোস্ট রয়েছে। প্রতিদিনই চলে তাদের এক বেলা খাবার বিতরণের কার্যক্রম।
আশুগঞ্জ থেকে আসা এক রোগীর মা নাছিমা জানান, অসুস্থ মেয়েকে নিয়ে হাসপাতালে এসেছেন বেশ কয়েকদিন হলো। স্বল্প আয়ের হওয়ায় ভাল খাবার তাদের কপালে কমই জুটে। এ হাসপাতালে থাকা অবস্থায় প্রতিদিনকার খরচ মেটাতে হিমশিম খেতে হয়। দুটো ডাল-ভাত খেয়ে কেটে যায় তিন বেলা। কিন্তু গত তিনদিন যাবত তিনি ও তার মেয়ে পোলাও মোরগ দিয়ে ভাল খাবার খাচ্ছি। হাসপাতালে থাকা জামিলা, সুমা, নারগিসদের অনেকেই তাদের অভিব্যক্তি জানান।

নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক ওই দানশীল ব্যক্তি বাংলানিউজকে বলেন, তিনি নিজেসহ সমাজের বিত্তবানদের কাজ থেকে আর্থিক সহযোগিতা নিয়ে খাবার দেয়ার এই কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন।

তিনি আরো জানান, হাসপাতাল কৃর্তপক্ষের অনুমতি নিয়ে রোগীর পরিবারের হাতে খাবার পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

আরও পড়ুন