৭ই অক্টোবর, ২০২২ ইং | ২২শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

EN

সুবিধাবঞ্চিত ৬২০টি পরিবারের কাছে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর ছাত্রলীগ

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ৫:০৮ অপরাহ্ণ , ৭ এপ্রিল ২০২০, মঙ্গলবার , পোষ্ট করা হয়েছে 3 years আগে

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ সুবিধাবঞ্চিত ৬২০টি পরিবারের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিয়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর ছাত্রলীগের নেতা ও কর্মীরা।

গত রোববার সন্ধ্যা ৭টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত খাদ্যসামগ্রী বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেওয়া হয়। সদর উপজেলার পৌর এলাকার মেড্ডা, পাইকপাড়া, তিতাসপাড়া ও ট্যাংকেরপাড় এলাকার ৬২০টি পরিবারের কাছে এসব খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেন তারা।খাদ্যসামগ্রীর মধ্যে রয়েছে ৫ কেজি চাল, ১ কেজি ডাল, ২ কেজি আলু, ১ লিটার তেল, ১ কেজি পিঁয়াজ, ৫ কেজি আটা, ১ টি ডেটল সাবান ও ২টি খাবার স্যালাইন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ সুবিধাবঞ্চিত ৬২০টি পরিবারের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিয়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর ছাত্রলীগের নেতা ও কর্মীরা।

গত রোববার সন্ধ্যা ৭টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত খাদ্যসামগ্রী বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেওয়া হয়। সদর উপজেলার পৌর এলাকার মেড্ডা, পাইকপাড়া, তিতাসপাড়া ও ট্যাংকেরপাড় এলাকার ৬২০টি পরিবারের কাছে এসব খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেন তারা।খাদ্যসামগ্রীর মধ্যে রয়েছে ৫ কেজি চাল, ১ কেজি ডাল, ২ কেজি আলু, ১ লিটার তেল, ১ কেজি পিঁয়াজ, ৫ কেজি আটা, ১ টি ডেটল সাবান ও ২টি খাবার স্যালাইন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পদক লিমন আল স্বাধীন জানান, দুর্যোগেই মনুষত্বের পরিচয়। আমরা সামাজিক দায়িত্ববোধ থেকেই অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছি।স্থানীয় সাংসদ র, আ, ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরীর নির্দেশনা জেলা ছাত্রলীগের তত্ত্বাবধানে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবরোধে ঘরে থাকা অসহায় ও দরিদ্র ৬২০টি পরিবারের মধ্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রী আমরা বাড়ি বাড়ি গিয়ে পৌঁছে দিয়েছি ।

ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পদক লিমন আল স্বাধীন জানান, দুর্যোগেই মনুষত্বের পরিচয়। আমরা সামাজিক দায়িত্ববোধ থেকেই অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছি।স্থানীয় সাংসদ র, আ, ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরীর নির্দেশনা জেলা ছাত্রলীগের তত্ত্বাবধানে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবরোধে ঘরে থাকা অসহায় ও দরিদ্র ৬২০টি পরিবারের মধ্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রী আমরা বাড়ি বাড়ি গিয়ে পৌঁছে দিয়েছি ।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

আরও পড়ুন