২৮শে নভেম্বর, ২০২২ ইং | ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

EN

বিভিন্ন গুজবের কারণে আমাদের ঈমান দুর্বল করো না

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ১২:৫৩ অপরাহ্ণ , ২৭ মার্চ ২০২০, শুক্রবার , পোষ্ট করা হয়েছে 3 years আগে

গত রাতে এশার নামাজ পড়েই অন‍্যান‍্য দিনের মত আমি ঘুমিয়ে পড়ি।কিন্তু মধ‍্যরাতে আযানের শব্দে ভাঙল ঘুম।চতুর্দিকে আযান।ভয় পেয়ে গেলাম।ভয়ঙ্কর কিছু শুরু হলো নাকি।হঠাৎ করে এ আযান কেন। কি ব‍্যপার। এরপরই ফোন আসতে শুরু করে।হঠাৎ মধ‍্যরাতে এ আযান কেন, অনেকেই জানতে চাইল।

পরে জানতে পারলাম, কারা নাকি সিদ্ধান্ত নিয়েছে, করোনা ভাইরাস সংক্রমণ নিরোধে এবং মহাদূর্যোগ থেকে বাঁচার জন‍্য সারা দেশে এক যোগে আযান দিবে। ফেসবুকে তারা প্রচার করেছে।

আযান দিবা তো ভাল কথা।বিপদে আপদে আযান দেওয়া শরিয়তে মুস্তাহাব।আমরা আযান দেওয়ার পক্ষেই আছি।কিন্তু তাই বলে নিজেরা সিদ্ধান্ত নিয়ে সারা দেশকে ভীত সন্ত্রস্তের মধ‍্যে ফেলে দেওয়ার মানে কি? এব‍্যাপারে সিদ্ধান্ত নিবে বাংলাদেশ ইসলামি ফাউন্ডেশন।মসজিদের ঈমাম সাহেব বললেন, বাংলাদেশ ইসলামি ফাউন্ডেশন থেকে সারা দেশে একযোগে আযান দেওয়ার ব্যাপারে কোনো ঘোষণা করা হয়নি। এ সংস্থাকে না জানিয়ে যে কেউ কি এ সিন্ধান্ত নিতে পারে?

আবারো বলি, আমি আজানের পক্ষে। কিন্ত হঠাৎ করে এতো রাতে আযান দিয়ে মানুষের মনে অনেক ধরনের ভুল ধারণা তৈরি করে দেওয়ার পক্ষে আমি নয়। হঠাৎ এই আতঙ্কের জন্য যদি কেউ হার্ট এটাক করে মারা যেত, তাহলে এর দায়বার কে নিত।

যারা ফেসবুকের মাধ্যমে হঠাৎ করে মধ‍্যরাতে আযান দেওয়ার নামে গুজব ছড়িয়েছে, আমার মতে তারা ভাল করে নি।

তারপর শুনলাম, কোন শিশু নাকি বলেছে, ঠান্ডা পানি দিয়ে চিনি বিহীন চা পাতার রস খেলে করোনা ভাইরাসের রোগী ভাল হয়ে যাবে।ব‍্যস শুরু হয়ে গেল চিনি বিহীন ঠান্ডা পানির রং চা খাওয়া।

শুনলাম আরেকটি আজব কথা! গ্রামের কিছু মহিলা ডাব গাছের গোঁড়ায় রাতভর পানি ঢেলেছে। কে নাকি বলেছে, ডাব গাছ সব সাদা হয়ে গেছে, এই ডাব গাছের গোঁড়ায় পানি দিলে তা আবার আগের সবুজ রং ধারণ করবে এবং আল্লাহ পাক মহা দূর্যোগ করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা করবেন!

নানান ধরণের মিথ্যা কথা বলে গুজব ছড়ানো কি আদৌ ঠিক?

আমরা মহাদূর্যোগ করোনা ভাইরাস সংক্রমণ নিরোধে সরকারের দেওয়া নিয়ম মানতে রাজি নয় কিন্তু গুজবে কান দিতে রাজি।মূলকথা, বাঙালি গুজবে বিশ্বাসী।

মহা দূর্যোগ করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে দেশের সরকার এবং প্রখ‍্যাত আলেম উলামা কর্তৃক প্রণীত দিকনির্দেশনা মেনে চলুন এবং গুজবে কান না দিয়ে নিজ ঘরে তাওবা ইস্তেগফার করতে থাকুন।

গুজব ছড়িয়ে যারা আতংকিত করে ভ্রান্ত আক্বিদাহ চাপিয়ে দেওয়ার ঘৃণ্য অপচেষ্টা করে যাচ্ছে তাদের বিষয়ে সতর্ক হউন।

হে গাফুরুর রাহিম, হে রাহমানুর রহিম, হে রাব্বুল আলামীন, হে বিশ্বজাহানের পালনকর্তা, হে গোটা মানবজাতির ত্রাতা মুসলমানদের ঈমানকে শক্তিশালী ও মজবুত করে দাও এবং সবাইকে তুমি ক্ষমা কর।
আমীন।।

সাংবাদিক জসীম উদ্দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

March 2020
M T W T F S S
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031  
আরও পড়ুন