২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ ইং | ১০ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

EN

সরাইলে নিখোঁজ হওয়ার পাঁচ দিনেও মাদ্রাসা ছাত্রের সন্ধান মেলেনি

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ৮:৪১ পূর্বাহ্ণ , ৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, শনিবার , পোষ্ট করা হয়েছে 4 years আগে

মোঃ তাসলিম উদ্দিন, সরাইল প্রতিনিধিঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে নিখোঁজ হওয়ার পাঁচ দিনেও জিয়াউল ইসলাম বাবু (১২) নামে এক মাদ্রাসা ছাত্রের সন্ধান করতে পারেনি পুলিশ। বিষয়টি নিয়ে চরম উদ্বেগ উৎকন্ঠায় আছেন ওই ছাত্রের পরিবার। নিখোঁজ মাদ্রাসা ছাত্র বাবু উপজেলার নোয়াগাঁও ইউনিয়নের আঁখিতারা গ্রামের মোঃ আহাদ মিয়ার পুত্র। সে স্থানীয় একটি মাদ্রাসার অনিয়মিত ছাত্র।

গত বৃহস্পতিবার (০৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে সরাইল থানাপুলিশের কাছে নিখোঁজ ছোট ভাইয়ের সন্ধানে আসা ওই মাদ্রাসা ছাত্রের বড় ভাই মোঃ উজ্বল মিয়া উপস্থিত সাংবাদিকদের কাছে আক্ষেপ করে বলেন, পাঁচ দিন যাবত আমার ছোট ভাই মাদ্রাসা ছাত্র বাবু নিখোঁজ। থানায় জিডি করেছি, কিন্তু পুলিশ তার সন্ধান দিতে পারছেন না। বিষয়টি নিয়ে আমাদের পরিবার আতঙ্কের মধ্যে রয়েছে।

পুলিশ, নিখোঁজ ছাত্রের পরিবার ও থানায় দায়ের করা জিডি সূত্রে জানা যায়, গত দুই ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় বাড়িরপাশেই আঁখিতারা বাজারে আনজু মিয়ার চায়ের দোকানে বিপিএল ক্রিকেট খেলা টেলিভিশনে চলাকালে এই খেলায় “জুয়া খেলা” নিয়ে একই গ্রামের মৃত অলি উল্লাহ’র ছেলে মোঃ আশরাফুর রহমান আবুল (৪২) এর সঙ্গে ওই মাদ্রাসা ছাত্রের বাকবিতন্ডা হয়। এসময় আবুল ক্ষিপ্ত হয়ে মাদ্রাসা ছাত্র বাবুকে হত্যার পর লাশ গুম করার হুমকি দেয়।

এ ঘটনার পরদিন (০৩ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাত’টার দিকে বাবু বাড়ি থেকে বাজারের উদ্দেশ্যে বাহির হওয়ার পর থেকে নিখোঁজ রয়েছে। সম্ভাব্য সকল জায়গায় খোঁজ করে সন্ধান না পেয়ে ৪ ফেব্রয়ারি তার বড় ভাই উজ্জ্বল মিয়া বাদী হয়ে সরাইল থানায় জিডি করেন। জিডিতে আশরাফুর রহমান আবুলকে সন্দেহের তালিকায় রেখে জিডি’র বাদী দাবি করেছেন, তার ভাই বাবুকে প্রতিপক্ষ আবুল অপহরণের পর হত্যা করে লাশ গুম করিয়া ফেলতে পারে।

এ ব্যাপারে জিডি’র তদন্তকারী অফিসার এস আই মোঃ রফিকুল ইসলাম এই প্রতিবেদককে বলেন, নিখোঁজ জিয়াউল ইসলাম বাবু’র সন্ধানে পুলিশ সকল তৎপরতা অব্যাহত রেখেছে। আমরা তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তা নিয়েও এগিয়ে যাচ্ছি। আশা করি আমরা তাকে উদ্ধারে সফল হব।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

February 2019
M T W T F S S
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728  
আরও পড়ুন