২৭শে জানুয়ারি, ২০২৩ ইং | ১৪ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

EN

সামাজিক মাধ্যমে গুজব রটানোর অভিযোগে মডেল কাজী নওশাবা আহমেদকে গ্রেফতার

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ৫:৩৫ পূর্বাহ্ণ , ৫ আগস্ট ২০১৮, রবিবার , পোষ্ট করা হয়েছে 4 years আগে

 

নিজস্ব সংবাদদাতা:

নিরাপদ সড়কের দাবীতে আন্দোলনে ধানমন্ডিতে জিগাতলায় আওয়ামীলীগের সভানেত্রীর কার্যালয়ে শিক্ষার্থীকে চোখ উপড়ে ফেলার গুজব ছড়ানোর অভিযোগে অভিনেত্রী এবং মডেল কাজী নওশাবা আহমেদকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব ১। শনিবার (৪ আগস্ট) রাতে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

এর আগে শনিবার বিকেলে জিগাতলায় নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ওপর হামলায় দুই ছাত্রের মৃত্যু এবং একজনের চোখ তুলে ফেলার খবর নিজের ফেইসবুকে দিয়েছেন অভিনেত্রী ও মডেল কাজী নওশাবা আহমেদ। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে শনিবার দুপুরে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আওয়ামী লীগের ধানমন্ডির কার্যালয়ের কর্মীদের সংঘর্ষ বাঁধার পর জিগাতলা এলাকা রণক্ষেত্রে রূপ নেয়। বিকাল পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে চলে এ সংঘর্ষ। শেষে পুলিশের সাথে শিক্ষার্থীদের একটি প্রতিনিধি দল আওয়ামীলীগের কার্যালয় পরিদর্শন করে স্বীকার করেন তারা গুজবে কান দিয়েছেণ।

সংঘর্ষে শিক্ষার্থীদের মৃত্যুর ‘গুজব’ ছড়িয়ে পড়লে অভিনেত্রী নওশাবা বিকাল চারটার দিকে ফেইসবুক লাইভে আসেন। এক মিনিটের ৩৭ সেকেন্ডের লাইভ ভিডিওর শুররুতেই তিনি বলেন, “আমি কাজী নওশাবা আহমেদ বলছি, আপনাদেকে জানাতে চাই, একটু আগে জিগাতলায় আমাদের ছোট ভাইদের একজনের চোখ তুলে ফেলা হয়েছে, দুজনকে মেরে ফেলা হয়েছে। সকলকে এক হওয়ার অনুরোধ জানিয়ে এই অভিনেত্রী বলেন, আপনারা সবাই এক সাথে হোন। ওদের প্রটেকশন দিন প্লিজ। বাচ্চাগুলো আনসেইফ অবস্থায় আছে। আপনারা রাস্তায় নামেন প্লিজ। আন্দোলনকারী ছাত্রদের রক্ষা করতে সকলকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে নওশাবা বলেন, “যদি সরকার প্রটেকশন দিতে না পারেন, তবে মা বাবা হয়ে, ভাই বোন হয়ে ছেলে মেয়েগুলোকে প্রটেকশন দিন, এটা আমার রিকোয়েস্ট। যে ছাত্রটির চোখ উপড়ে ফেলা হয়েছে, সে জিগাতলা হাইস্কুলের দাবি করে এই অভিনেত্রী আরও বলেন, “এদেশের নাগরিক হিসেবে, মানুষ হিসেবে রিকোয়েস্ট করছি, জিগাতলায় স্কুলের ছেলের চোখ উপড়ে ফেলা হয়েছে। ছাত্রলীগ এই হামলা করেছে দাবি করে তিনি বলেন, “একটু আগে অ্যাটাক করেছে, ছাত্রলীগের ছেলেরা। তারা জিগাতলায় আছে। আপনারা এখনই নামবেন, আপনাদের বাচ্চাদের নিরাপদ জায়গায় নিয়ে যাবেন। ট্রাফিক যে পুলিশরা আছেন, প্লিজ আপনারা নিজের দেশের বাচ্চাদের প্রটেকশন দেবেন। কিছু একটা। সরকার যদি দায়িত্ব নিতে না পারে, তবে জনগণ কিসের জন্য আছি আমরা? আমরা ৭১ দেখেছি, বায়ান্ন দেখেছি, আমরা এবারও পারব।তবে নওশাবার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, “আমি নিজে চোখে কিছু দেখিনি।”

পরে বিকালে আওয়ামী লীগ কার্যালয় ঘুরে এসে আন্দোলনকারীরা জানান, শিক্ষার্থী হতাহতের কথা গুজব। আওয়ামী লীগ কার্যালয়েই সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষার্থীদের একজন ঢাকা আইডিয়াল কলেজের শিক্ষার্থী কাজী আশিকুর রহমান তূর্য বলেন, “আমরা আওয়ামী লীগ কার্যালয় ঘুরে এসে বলছি, আমাদের কাউকে আটকে রাখা হয়নি। গুজব ছড়ানো হয়েছে। তাতে আমরা উত্তেজিত হয়ে পড়েছিলাম।”

 

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

August 2018
M T W T F S S
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  
আরও পড়ুন