১৯শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

EN

বরিশালে পুনর্নির্মাণ হচ্ছে আয়রনের সব সেতু

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ১২:৫৯ পূর্বাহ্ণ , ৫ মে ২০১৮, শনিবার , পোষ্ট করা হয়েছে 6 years আগে

নিজস্ব প্রতিবেদক: বরিশাল বিভাগের লক্কর-ঝক্কর মার্কা তথা ঝুঁকিপূর্ণ সেতু আর থাকছে না। এ অঞ্চলে আয়রনের তৈরি এ সেতুগুলো সংস্কার করে চকচকে করার চিন্তা করছে সরকার। স্থানীয় সরকার বিভাগ এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাবনা প্রকল্প পরিকল্পনা কমিশনে পাঠিয়েছে। এখন চূড়ান্ত অনুমোদনের অপেক্ষায় আছে। অনুমোদন পেলে ২০২৩ সাল নাগাদ এসব সেতু বদলে যাবে।

পরিকল্পনা কমিশন সূত্র জানায়, দেশের দক্ষিণাঞ্চলের আয়রনের তৈরি সেতু আছে কয়েক হাজার। এর মধ্যে ১৯শ সেতু ঝুঁকিপূর্ণ। যা নিরবচ্ছিন্ন যোগাযোগব্যবস্থার অন্তরায়। এই অবস্থায় এসব ছোট ছোট সেতু সংস্কারসহ পুনর্নির্মাণ করতে চায় স্থানীয় সরকার বিভাগ।

এ প্রসঙ্গে পরিকল্পনা কমিশনের কৃষি, পানি সম্পদ ও পল্লী প্রতিষ্ঠান বিভাগের সদস্য এ এন সামসুদ্দিন আজাদ চৌধুরী বলেন, বরিশাল বিভাগের ৬ জেলার বিভিন্ন উপজেলায় মোট ১ হাজার ৯২৮টি ঝুঁকিপূর্ণ আয়রনের তৈরি কালভার্ট রয়েছে। এগুলো সংস্কারে একটি প্রকল্প হাতে নেয়া হচ্ছে। এতে ব্যয় হবে ১৮শ কোটি টাকা। গুরুত্ব বিবেচনায় চূড়ান্ত অনুমোদনের সুপারিশ করা হয়েছে।

এলজিইডি বলছে, এটি বাস্তবায়িত হলে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের পুরাতন ও ঝুঁকিপূর্ণ আয়রন ব্রিজ পুনর্নির্মাণের মাধ্যমে পল্লী সড়ক নেটওয়ার্ক শক্তিশালী হবে। কারণ এসব সেতু আশির দশকে নির্মিত। এখন যোগাযোগের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, এতে পরিবহন ব্যয় কমে যাবে, কৃষি ও অকৃষি পণ্য উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে এবং কৃষি পণ্য বাজারজাতকরণ সহজ হবে।

জানা গেছে, বরিশাল বিভাগের ৬টি জেলার বিভিন্ন উপজেলায় লোহার ব্রিজ পুনর্নির্মাণ করা হবে। উপজেলাগুলো হচ্ছে, বরিশাল জেলার সদর, আগৈলঝাড়া, বাবুগঞ্জ, বাকেরগঞ্জ, বানারীপাড়া, গৌরনদী, হিজলা, মেহেন্দিগঞ্জ, মূলাদী এবং উজিপুর। ঝালকাঠি জেলার সদর,কাঠালিয়া, নলছিটি এবং রাজাপুর। ভোলার সদর, বোরহানুদ্দীন, চরফ্যাশন, দৌলতখান, লালমোহন, মনপুরা এবং তজুমুদ্দীন। পিরোজপুরের সদর, ভান্ডারিয়া, কাউখালি, মঠবাড়িয়া, নাজিরপুর, নেছারাবাদ এবং ইন্দুরকানি। বরগুনার সদর, আমতলী, বামনা, পাথরঘাটা, বেতাগী এবং তালতলী। পটুয়াখালীর সদর, বাউফল, দশমিনা, দুমকি, গলাচিপা, কলাপড়া, মির্জাগঞ্জ এবং রাঙ্গাবালী উপজেলায় লোহার ব্রিজ পুনর্বাসন করা হবে।

প্রকল্পের মূল কার্যক্রমগুলো হচ্ছে, উপজেলা সড়কে ৩০৪টি লোহার ব্রিজ পুনর্নির্মাণ, ৫৪৯টি ইউনিয়ন সড়কে পুনর্নির্মাণ, ২৩৭টি ইউনিয়ন সড়কে লোহার ব্রিজ রক্ষণাবেক্ষণ এবং ৮৩৮টি গ্রাম সড়কে লোহার ব্রিজ করা হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

May 2018
M T W T F S S
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031  
আরও পড়ুন