২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ ইং | ১০ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

EN

লেবাননে গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যা ; মূল হোতাসহ আটক ২

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ৫:৪৮ পূর্বাহ্ণ , ৭ এপ্রিল ২০১৮, শনিবার , পোষ্ট করা হয়েছে 4 years আগে

জহির রায়হান, লেবানন থেকে: লেবানন, বৈরুতের আলবস্তা নামক এলাকায় এক গৃহবধূর গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

গত সোমবার (২ এপ্রিল) রাত আনুমানিক সাড়ে এগারোটায় বৈরুতের আলবস্তা নামক এলাকা থেকে হালিমার (২৮) লাশ উদ্ধার করা হয়। এ হত্যাকান্ডের মূল হোতা নিহতের স্বামী আরমান মিয়া (৩১) এবং রবিন (৩০) নামক অপর এক জনকে আটক করেছে লেবাননের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

নিহত হালিমার স্বামী আরমান মিয়া নারায়ণগঞ্জ জেলার রুপগঞ্জ উপজেলার গুতিয়াবু গ্রামের ওমর আলীর ছেলে। নিহত হালিমার বিস্তারিত পরিচয় পাওয়া যায়নি।

হত্যাকান্ডের মূলহোতা নিহতের স্বামী আরমান মিয়া। 

এলাকাবাসীর সূত্রে জানা যায়, বাংলাদেশেই হালিমার সঙ্গে আরমানের বিয়ে হয়। লেবাননে আলবস্তা নামক এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতেন এবং দুইজনে পার্শ্ববর্তী দুটি কোম্পানিতে চাকরি করতেন। গত সোমবার রাতে তাদের স্বামী-স্ত্রীর মাঝে দাম্পত্যকলহ বেড়ে যায় এবং একপর্যায়ে আরমান তার স্ত্রী হালিমাকে গলায় ছুরি চালিয়ে হত্যা করে। পরে বাসার মালিক পুলিশকে খবর দিলে ঘটনাস্থল থেকে নিহত হালিমার গলাকাটা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

লেবানন পুলিশের কাছে দেওয়া আরমানের জবানবন্দিতে জানা যায় , আরমানের স্ত্রী হালিমা স্বামীর সংসারে থেকে পরকীয়া প্রেমে আবদ্ধ হয়। এ বিষয়টি স্বামী আরমান জেনে যান। পরকীয়া সম্পর্কের ঘটনা নিয়ে তাদের মাঝে দীর্ঘদিন ধরেই চলতে থাকে দাম্পত্যকলহ। ঘটনার দিন তাদের দাম্পত্যকলহ মাত্রাতিরিক্ত হওয়ায় একপর্যায়ে স্বামী আরমান তার স্ত্রী হালিমার গলায় ছুরি চালিয়ে দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই হালিমার মৃত্যু হয়।

নিহত হালিমার লাশ বর্তমানে পুলিশ হেফাজতে হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।

এ ব্যাপারে লেবাননে নিযুক্ত বাংলাদেশের মান্যবর রাষ্ট্রদূত আব্দুল মোতালেব সরকার বলেন, এ দেশের আইন অনুযায়ী অভিযুক্ত ব্যক্তির শাস্তি যা হবার তাই হবে। অপরাধ করে এ দেশের আইনের চোখকে ফাঁকি দিয়ে কোন অপরাধী পালাতে পারেনি। অতএব, ভবিষ্যৎকালে এ ধরনের ঘটনার আর যেন পুনরাবৃত্তি না ঘটে এজন্য তিনি সকলকে অনুরোধ করেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

April 2018
M T W T F S S
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
30  
আরও পড়ুন