৭ই অক্টোবর, ২০২২ ইং | ২২শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

EN

নির্বাচনে সাংবিধানিক ধারা রক্ষা সময়ের চ্যালেঞ্জ

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ৯:৪৩ অপরাহ্ণ , ২৪ মার্চ ২০১৮, শনিবার , পোষ্ট করা হয়েছে 5 years আগে

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজনীতি ও নির্বাচনে সাংবিধানিক ধারা রক্ষা করা সময়ের চ্যালেঞ্জ বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ জাসদের সভাপতি শরীফ নুরুল আম্বিয়া।

শনিবার বিকেলে জাতীয় প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে ১৯৭১ এর অগ্নিঝরা মার্চ স্মরণে এবং ৪৭তম মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল- বাংলাদেশ জাসদ আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

শরীফ নুরুল আম্বিয়া বলেন, আমাদের মুক্তি সংগ্রামের ইতিহাস জনগণের রক্তাক্ত সংগ্রামের ইতিহাস। ৩০ লক্ষ শহীদ ও অসংখ্য নারীর সম্ভ্রমের বিনিময়ে আমরা স্বাধীনতা অর্জন করেছি। অনেক বাধা-বিপত্তি ও ষড়যন্ত্রের পরও মাতৃভূমির প্রতি জনগণের ভালোবাসা ও কঠোর পরিশ্রমের ফলে আজ আমরা স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছি।

তিনি বলেন, আমাদেরকে লুটের-দুর্নীতি বিরোধী রাজনৈতিক প্রতিশ্রুতি আরও দৃঢ় করতে হবে। আইনের শাসন শিথিল করা যাবে না। জঙ্গিবাদী-সন্ত্রাসী তৎপরতা থেকে সমাজ ও রাজনীতিকে মুক্ত রাখতে হবে। যারা হেফাজত-জামায়াতের সামাজিক রক্ষাব্যূহ হিসেবে কাজ করে, তাদের সম্পর্কে সতর্ক থাকতে হবে অসাম্প্রদায়িক সমাজ নির্মাণের স্বার্থে। রাজনীতি ও নির্বাচনে সাংবিধানিক ধারা রক্ষা করা সময়ের চ্যালেঞ্জ।

জাসদ সভাপতি বলেন, ৭১-এর মার্চ স্বাধীন বাংলাদেশ ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ ছিল উদ্যোগী শক্তি। ২, ৩ ও ২৩ মার্চে তাদের ভূমিকা ইতিহাসে অক্ষয় হয়ে থাকবে। মার্চ মাসে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে ৬ দফার সংগ্রাম ১ দফার গণঅভ্যুত্থানে পরিণত হয়েছিল। বঙ্গবন্ধুর নির্দেশ মতো অসহযোগ আন্দোলন চলছিল, তারপরও পাকিস্তানপন্থীরা সক্রিয় ছিল।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর একজন বিশ্বস্ত অনুসারী হিসেবে সিরাজুল আলম খান স্বাধীনতার লক্ষ্যে নিরলসভাবে সংগ্রাম ও সংগঠন গড়ে তুলেছেন ১৯৬২ সাল থেকে। অস্থায়ী সরকারের নেতৃত্বসহ আমাদের মহান মুক্তি সংগ্রামে যার যতটুকু অবদান আছে, তার যথাযথ স্বীকৃতি না দিলে ইতিহাস ভুল পথে পরিচালিত হবে।

তিনি নতুন প্রজন্মকে সঠিক ইতিহাস জানানো আমাদের দায়িত্বের মধ্যে পড়ে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় জাতীয় ঐক্যকে আরও শক্তিশালী করার শপথ নিয়ে সবাইকে এবারের মহান স্বাধীনতা দিবস পালনের আহ্বান জানাই।

দলটির সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক প্রধান বলেন, ষাটের দশকে শুরু হওয়া স্বাধিকারের সংগ্রাম সীমাহীন ত্যাগ তিতিক্ষার বিনিময়ে একাত্তরে পরিণতি পায় সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধে। ধারাবাহিক ও নিরলস সংগ্রামের মাধ্যমে এদেশের ছাত্র-জনতা সব চক্রান্তের জাল ছিন্ন করে একাত্তরের মার্চে গোটা বাংলাদেশকে মিলিত করে স্বাধীনতার মোহনায়।

বাংলাদেশ জাসদের সভাপতি শরীফ নুরুল আম্বিয়ার সভাপতিত্বে সভা সঞ্চালনা করেন- দলটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক করিম সিকদার। প্রধান অতিথি ছিলেন- বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।

সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন- জাসদ সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক প্রধান, মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর ট্রাস্টি ডা. সারওয়ার আলী, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির পলিট ব্যুরোর সদস্য কামরুল আহসান, ন্যাপ সাধারণ সম্পাদক নজরুল মজিদ বেলাল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন অধ্যাপক বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রফেসর নূরুর রহমান, বাংলাদেশ জাসদ স্থায়ী কমিটি সদস্য মুশতাক হোসেন, মোহাম্মদ খালেদ প্রমুখ।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

March 2018
M T W T F S S
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031  
আরও পড়ুন