২৭শে জানুয়ারি, ২০২৩ ইং | ১৪ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

EN

সেই ষড়যন্ত্র এবং ভাগ্য বদলে যাওয়ার গল্প

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ২:৫৩ পূর্বাহ্ণ , ২২ নভেম্বর ২০১৭, বুধবার , পোষ্ট করা হয়েছে 5 years আগে

ষড়যন্ত্রেই মৃত্যু। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার গনমানুষের নেতা সদর আসনের প্রয়াত সংসদ সদস্য এডভোকেট লুৎফুল হাই সাচ্চুর মৃত্যুর জন্যে দায় অনেক ষড়যন্ত্র। মন্ত্রী হবেন তিনি-ছিলো এমনই আলোচনা। প্রধানমন্ত্রীর ব্রাহ্মণবাড়িয়া সফরের দিন(২০১০ সালের ১২ই মে ) লাখো হাজারো মানুষ সেই আশা বুকে নিয়ে হাজির হয়েছিলেন নিয়াজ মুহম্মদ স্কুল মাঠে। মন্ত্রীত্ব দাবীর অনেক ব্যানার-ফেষ্টুন শোভিত হচ্ছিল মাঠের চারদিকে। ষড়যন্ত্রকারীরা বুঝতে পেরেছিলো লুৎফুল হাই সাচ্চু কেবিনেট মিনিষ্টার হবেন নিশ্চিত। এমনকি নবগঠিত রেলপথ মন্ত্রনালয়ের প্রথম মন্ত্রী হবেন তিনি এমন আলোচনাও ছিলো। তাই তারা আশুগঞ্জে মেঘনা দখলের এক রচনা ফাদে। সেদিন দেশের বড় একটি দৈনিকে ওই রচনা লিড হয়। পরিকল্পনা মতো পত্রিকার হাজার হাজার কপি ব্রাহ্মণবাড়িয়া নিয়ে আসা হয়। প্রধানমন্ত্রী জনসমাবেশস্থলে এসে মঞ্চে আসন গ্রহন করলে এই পত্রিকা তার সামনে রাখা হয়। মন মেজাজ বিগড়ে দেয়া হয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর। এর কুশীলব ছিলেন এক রাজনীতিক,এক আমলা আর এক সাংবাদিক(স্থানীয়)। ওই সাংবাদিক পত্রিকাটির ঢাকা অফিসে কর্মরত এক সাংবাদিককে নিয়ে এই মিশন সম্পন্ন করেন। আশুগঞ্জ সারকারখানার তৎকালীন এমডি ওসমান গনিও জড়িত ছিলেন এই ষড়যন্ত্রে। কারখানার ভেতরের টাওয়ারে উঠিয়ে ওই সাংবাদিকদের ঘটনার অতিরঞ্জিত ছবি উঠাতে সহায়তা করেন দূর্নীতিবাজ গনি। আরো নানা সহায়তার কথা শুনা যায়। পরে শুনেছি এরপেছনে আরো ২/১ রাজনীতিকও ছিলেন। প্রায় অর্ধকোটি টাকা লেনদেন হয়েছে এই কাজে। স্থানীয় ওই সাংবাদিক নিজের মুখেই অনেককে বলেছেন তাকে জেলার অন্য একটি আসনের এক রাজনীতিক বিদেশ নিয়ে যেতে চাইছিলেন এই কুকর্ম করে দেয়ার জন্যে। পরে অবশ্য ওই সাংবাদিক চাকুরীচুৎত হন দূর্নীতির কারনে। এখন শুনি লুৎফুল হাই সাচ্চুকে বিলীন করে দেয়ার ষড়যন্ত্রে গুটি হিসেবে ব্যবহ্নত ওই সাংবাদিকের জীবন ফুড়ফুড়া। ঢাকায় ফ্ল্যাট এবং গাড়ির মালিক। টেন্ডারবাজি,ভূমিদস্যুতা,নিয়োগ বানিজ্য,মনোনয়ন বানিজ্য কোথায় নেই সাবেক ওই সাংবাদিক সাহেব। একজন গনমানুষের নেতাকে শেষ করে দিয়ে তার ভাগ্য বদলে ফেললো সে। লেখক, আল-মামুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

November 2017
M T W T F S S
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
27282930  
আরও পড়ুন